Little Things


Here I go... First post of 2014... Celebrating a new kind of 'New Year Celebration". I haven't been able to celebrate one like this in ages. All I can remember about New Year Celebration is flashing lights, loads of friends around, loud music, laughter, beach, rooftop fireplace, crazy dance and so on. This year, particularly is different. Classical music is buzzing inside my ears, finished watching all the episodes of Sherlock (clearly one of the best series I have ever seen), a half full mug of tea, walking into freezing cold, and a neighbourhood full of silence. I am sitting inside an empty house, which is located in the craziest party city of Canada. Still so calm and quiet.

2013, a year full of events. I will count the good ones, and consider rest of them as lessons. So many lessons indeed. But the year was good overall. No complain.

2014, I expect it to be full of events as well. If God wills, I will probably have a lot of brand new things in my life, including a Masters degree (Do pray for me!)

Resolutions. None. Nothing hard coded. Just want to become a better person. More responsible hopefully. And probably more serious about *reality*.

Realization at the end of 2013:
I have sudden change in pace of heartbeats nowadays. It beats faster often. I think, it's the cold. I live in one of the coldest countries, anyway!
I feel the mixture of introvert and extrovert deep inside. I think it completely depends on three things: situation, my mood, and the people around.
I am thinking of the sinusoidal curve. The one that has positive peak. It begins from a zero, reaches its peak, and then again, approaches zero. I think, on this very day, I have crossed the peak. Well, I am just talking about one aspect of life. People. Relationships.
There's another sinusoidal curve I can think of, again just the positive half. It represents 'professionalism'. Nope. I am not even close to the peak yet. Will get there someday, no worries. There's no hurry.

Realization at the beginning of 2014:
Those little bugs on your bed
A bit tight financial situation
Little regrets that haunt time to time
A deadly deadline
A little sleeping disorder
Eating one food for weeks
A little sluggish PC
A bit uncomfortable size of monitor
Lack of a tablet PC
A little hassle to cook on your own
Absorbing a bit cold in the bus stop
A little frustrated look from your boss
Little family problems
A little loneliness, everyday
A little memory of betrayal
A pair of winter shoe that doesn't work well on black ice
A distant office room
A little fight with friends
A little loss of trust
Speakers that create noise out of nowhere
Headphone that doesn't work well
Lack of career plans
A cellphone that crashes during a Skype session
A little stress
A little boredom
....
All these little things, little bad things, actually make life meaningful. They help me carry on. They keep me busy. They force me to expect more, do more. They... keep me alive, help me be a human... All of these bad things cannot beat the fact that I am still breathing, writing this blog, having the peace of mind by just talking to my family... These little bad things are the blessings...

I should be upset today according to the recent events. But I am not. I just feel strange. And blessed.
Keep me, my family, and my close ones, in your prayers, please! That's the only thing I ask for whoever read my ramblings.

Happy New Year everyone :) This year is going to be awesome for you, trust me.

(Did you see the picture above? Well, that says a lot about my new year celebration. Only if you can see it.)

Vacation Spoiler

Things that spoiling my vacation, and on a bigger scale ruining my life:

1) Fever
2) Cough

3) Fever
4) Cough

5) Fever
6) Cough

I hate them!!!! :@ :@ :@

ছোট্টকালের একটি দিন



সকাল ৭ টা - বিছানা থেকে আম্মু টেনে তুললো... আবার সোফায় গিয়ে ঘুম দিলাম

সকাল ৭.২০ - কোনমতে ব্রাশ করে ডাইনিং টেবিলে বসলাম... আম্মু পানি ভাত দিল... আধো ঘুম অবস্থায় কিছুদুর খাইলাম... তারপর একটু চা

সকাল ৭.৪০ - জাহান আন্টি অথবা আম্মু কেউ একজন আমাকে ইউনিফর্ম পরালো... জুতা পরানোর সময় ব্যাপক পেইন দিলাম

সকাল ৭.৫০ - সিলভার বেলস স্কুলের দিকে হাটা দিলাম... হেটে যাইতে ৬/৭ মিনিটের বেশি লাগেনা... বাবুল মামা আমার ব্যাগ কাধে নিয়ে ইস্কুলে দিয়ে আসলেন

সকাল ৮.০০ - ক্লাসে ঢুকে নির্ধারিত বেঞ্ছে বসলাম ... ক্লাস টিচার আসার সাথে সাথে সবাই একসাথে দাঁড়িয়ে বললাম, "গুড মর্নিং ম্যাডাম!"

সকাল ৯.০০ - ইস্কুলে আবার ক্যাপ নিয়ে গেসিলাম... ক্লাসের ফাকে ফাকে হানিকে লুক দিচ্ছিলাম আর চোখাচোখি হইলে দুইজনেরই মুচকি হাসি

টিফিন ব্রেক - টিফিনটা কাউকে বিলি করে দিয়ে মাঠে গিয়ে চোর পুলিশ খেলা শুরু করলাম... আমিই বার বার পুলিশ আর হানি হইল চোর, এই অবস্থা দেখে মিষ্টি আমাকে কড়া লুক দিল... যাই হোক!

পিছনের বেঞ্চে বসে কলম ফাইট খেলা হচ্ছিল... কিভাবে জানি ম্যাডাম টের পেয়ে গেসে... এরপর একটা মেয়েকে দিয়ে পুরা বারান্দা কান ধরে হাটাইলো... আমার চেয়ে পিচকা পোলাপান এই দৃশ্য দেখে হাসাহাসি শুরু করল...

ইস্কুল ছুটি - বের হয়ে গেটের কাছে আচার ওয়ালা থেকে আচার, ঝালমুড়ি ওয়ালা থেকে ঝালমুড়ি আর আইসক্রিম ওয়ালা থেকে আইসক্রিম কিনলাম, আর আমি আর রুবায়েত বাসার দিকে হাটা দিলাম, পাশ থেকে আমাদেরকে খেয়াল রাখতেসেন আমার কোন এক মামা

বাসায় ফিরে আবার সেই খাওয়া-দাওয়া... ভাত অর্ধেক খেয়ে পারভেজ কে দিয়ে কাজ সেড়ে দিলাম... কাজ শেষ করে দেয়া হচ্ছে কোড ওয়ার্ড... এটার মানে আমি, আমার বড় ভাই আর আমাদের বাসায় পারভেজ তখন কাজ করত, সে জানে... সময় সুযোগ বুঝে আব্বু-আম্মু যখন আসে পাশে থাকবেনা, পারভেজ টেবিল থেকে অন্যান্য প্লেট ধোয়ার জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় ওই প্লেটে আমরা আমাদের ভাত দিয়ে দিতাম... এটাই হইল 'কাজ সেড়ে দেওয়া'

দুপুর ৩টা - ইয়াসমিন ম্যাডামের বাসায় পড়তে যাওয়া... গিয়ে ঊর্মি আপুর সাথে ব্যাল্কনি গিয়ে খেলাধুলা করা, সাথে রুবায়েত আর নিশাত, মাঝে মধ্যে হিরন মামার আমাদের সাথে যোগদান... হিরন মামার রুমে লন্ডন ব্রিজের উপর কেটে (লিটারেলি) বসানো একটা অসাম ছবি ছিল... ব্যাপার বুঝতে অনেক টাইম লাগসিল

বিকাল ৪.৩০ - ইয়াসমিন ম্যাডাম খাতা চেক করে, হোম ওয়ার্ক দিলেন আর ততক্ষনে আমার মামা এসে বসে আসে আমাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য

বাসায় গিয়ে এক গ্লাস গরুর দুধ খাইলাম!

তারপর ব্যাট-বল নিয়ে রাস্তায়... সামনের বাসার বিজন ভাই, পাশের বাসার সাইদুল, সাম্নের বাসার হাসু, লিংকন, টিটু, আমি, নাহিদ, রুবায়েত মিলে রাস্তায় খেলা শুরু... বল নালায় পড়লে রুবায়েতকেই তুলতে হবে... খেলতে গিয়ে উকিল সাহবের বাসার কাচ ভেঙ্গে গেল... মুহুর্তের মধ্যে সবাই গায়েব... ! উকিল সাহেব বের হয়ে কাউরে পাইলেন না ঝাড়ি দেয়ার জন্য...

এরপর মামা-খালাদের সাথে ছাদে উঠলাম, ছাদে আব্বুর করা বাগান... পেয়ারা পাড়লাম একটা, নিয়েই মোটামুটি খাওয়া শুরু...

মাগরিবের আজান হয়ার সাথে সাথে বাসায় গিয়ে ঢুকলাম... ঢুকেই ফ্রিজ থেকে বের করে ঠান্ডা পানি...
এরপর হাত মুখ ধুয়ে নাস্তা করলাম

বাইরে ভটভট শব্দ... আব্বুর ভেস্পার শব্দ... যে যে অবস্থানে ছিলাম, সেই অবস্থানেই ভদ্র হয়ে গেলাম...

হাল্কা পড়াশুনার ভান... বইয়ের মাঝখানে চাচা-চৌধুরির কমিক্স

রাত ৮.৩০ - টিভিতে নাটক চলতেসে... বাসার সবাই মিলে নাটক দেখতে বসলাম... নায়ক নায়িকার হাত ধরলেই কেমন কেমন জানি লাগে, যাহোক, অ্যাড শুরু হইল, দৌড় দিলাম নানু বাসায়... ওখানে মামা-খালার সাথে বসে নাটকের বাকি অংশ দেখলাম... ইউসুফ নানু মাঝখানে আবার সিভিট খাওয়াইলো, আর বড় মামা এই সুযোগে আমাকে দিয়ে মাথাটা একটু টিপাই নিল... এরপর নানুর কাছে গেলাম কিস্তা শুনতে... নানু আমাদের কিস্তা শুনাইলো...
এরপর আম্মু এসে নিয়ে গেল, ভাত দিসে

ভাত অর্ধেক খেয়ে নিয়ম অনুযায় 'কাজ সাড়লাম' পারভেজকে দিয়ে

এরপর আবার র‍্যাভেন টাইপ কিছু একটা দেখলাম, একি কাহিনী... কেমন কেমন জানি লাগে

রাতে বড় মামা আর আব্বু আড্ডা দিতে বসলো, কোথা থেকে জানি ইসলাম নানু চলে আসল... বড়দের কথা গিললাম বসে বসে... ১২ টার দিকে ঘুমাইতে পাঠানো হইল আমাদের কে, আমি আর নাহিদ আজাইরা পক পক করা শুরু করলাম, একটু পরে আব্বু এসে মশারির ভিতরে ঢুকে মশা মারা শুরু করল... মোটামুটি ৪/৫টা মশা মেরে আব্বু শান্তি পাইল...

রাত ১টার দিকে বাসায় আজাদ মামা আসল আড্ডা দিতে... আজাদ মামা কে নিয়ে কি একটা কথায় আমি আর নাহিদ ব্যাপক হাসাহাসি শুরু করলাম, কোন সময় আব্বু রুমে আসছে টের পাইনাই... এরপর কিছু শব্দ... তারপর সাথে সাথে আমরা ঘুম...

খুবই সাদামাটা, কিন্তু এখনো অনেক রঙিন...

খুনি

মনে হয় কত সমুদ্র,
এরপর সূর্যের বাঁধন,
আর মেঘের মাঝে লুকিয়ে থাকা সবকটি উৎসব...

যদি চাও, তবুও আধার নামাতে পারবেনা,
যদি চাও, অগ্রাহ্য করতে পারবেনা তার আবেদন,
বসে বসে এই ভাবাটাই কাজ...

আমাদের দিন-রাত্রি, যেন আমাদেরকেই উপহাস করে,
শত শত শিশিরের এক ফোটা জল,
কিন্তু সেই এক ফোটা জলকেই কি অস্বীকার করতে পারবে?

জানি পারবেনা...

জল কে বেধে রাখা যায়না,
সে প্রকৃতির বেধে দেয়া খেয়ালে খেয়া ভাসায়,
সে জলে জীবন আছে।

ঘটে যাওয়া কিছু জীবনকে মৃত্যু দিয়েছি আমরা,
সে মৃত জীবন আবার প্রাণ ফিরে পায়,
যতবার তার মৃত্যু হয়, ততবার সে জীবিত হয়,
কিন্তু এরপর তাকে আবার জীবন দিতে হয়...

আমি দেখেছি তার বেচে থাকার আকুতি,
সে প্রতিদিন, প্রতিদিন আমার কাছে এসে জীবন প্রার্থনা করে,
কিন্তু আমি তো পারিনে...
খুনি হয়ে খুন হয়ে যাওয়া জীবনের জন্য আর্তনাদ করি...
আর ভাবি, কালকে তোকে নিজ হাতে আবারো কবর দিতে হবে...

চলুক এভাবেই, ঘড়ির কাটা তো থেমে নেই,
মেঘের আড়ালে উৎসবের কমতি নেই,
ঢেকে যাক সব সত্য জীবন,
মিথ্যে বাস্তবতার বর্ষণে...
আমিই খুনি, আমরাই খুনি...

Farewell, Ashmeta


May be some other time, in some other world, we will share the same destiny. This time, let it be a dream. In fact, some dreams are better when they remain just dreams. And those dreams are timeless...

Downside-high

Sun is dark
Stars are gray
Trees are spreading visible ray

Rain is making you dry
From the ocean of air,
Let the sail rise high

Wind is pulling you inside
To get cold breeze from fire,
Set the halo in rainbow of black and white.

Do you see the angels die?
From a height, devils cry.

Heart starts beating when you pass away
You start knowing the world after you close your eye

The random crowd of silence
Through the bullet proof mind
You see the end of time,
And you realize,
You are not the only one,
Who like things to be,
downside-high.

Backbiting and Slandering



Just a little information about slandering and backbiting from the perspective of Islam:

Definition of slandering and backbiting according to Hadith:

Abu Hurayrah (radyAllaahu ‘anhu) narrated that Prophet Mohammad (sallAllaahu ‘alayhi wa sallam) said:
"Do you know what backbiting is?” They said, “Allah and His Messenger know best.” He then said, “It is to say something about your brother that he would dislike.” Someone asked him, “But what if what I say is true?” The Messenger of Allah said, “If what you say about him is true, you are backbiting him, but if it is not true then you have slandered him."

Islam strictly forbids slandering and backbiting:

From Quran:
"O you who believe! Avoid much [negative] assumptions, indeed, some assumptions are sin. And do not spy or backbite each other" [49:12]
"Woe to every slanderer and backbiter." [Surah Al-Humazah: 1] 

From Hadith:

Hudaifah (radyAllaahu ‘anhu) reported that the Prophet (sallAllaahu ‘alayhi wa sallam) said:
"The one who spreads gossip (Namaam) will not enter Paradise."
Me and some of my friends were discussing about 'slandering' from the perspective of Islam. We all know that 'backbiting' is a deadly sin. But we often do it. We do slandering even more frequently.

Just a little example:

#1
Probably you are browsing your Facebook news feed. You see a picture of girl without proper dress. Then you tell your friend about the girl... Something like, "See that girl... ah! what a revealing dress she is wearing, she is a '________". You all now what word you most frequently use in that gap. You don't know anything about that girl. You are just assuming it. And telling your assumption to your friend in her absence. That's slandering. And even if you knew that girl has some bad habits, you cannot just gossip about her. That's backbiting. Both are prohibited in Islam. But we 'Muslims' do it a lot.

#2
You heard from a 'friend' that your neighbor is an addicted person. And probably you keep spreading this without even verifying it. That's slandering. And even if it is true, that's backbiting.

There are cases when you can say negative things about others. For instance, you may have to complain about someone or warn someone about others.

Example:

If your friend is buying goods from a grocery, and you know for sure that the grocery sells faulty goods, you can warn your friend about that or you can even complain to the authority. That's not backbiting nor slandering.

Backbiting and slandering are two major sins. Brothers and sisters, please avoid these two. These two habits can eventually destroy a whole society.


N.B.: If you find any fault/misconception in this post, please provide information with construction comments.
[Image source: Islammessage]



Stairway to life



You are expressive. You cry. You cry it out. You talk. People listen. You talk it out. You study while you study. You really play while you play. You don't understand life that much.

You start getting to know the world. You get a taste of reality. You don't cry anymore. You feel. You don't tell anyone. You hide it. You engrave it. There's a smile on your face. You cannot cry. You lie to yourself.

You know life. You know the world around me. You start to find those feelings you engraved. You cannot find them. You cry. But you cannot cry it out. You want to talk but there's no one to listen to. But you live. You live until your body allows you to.

Don't try to understand life too much. Just live.


Window

WP_20130425_014
There are two kinds of window… One lets you see the world with your own eyes, another shows you what others can see….

No One Lives Forever

WP_20130425_041
Once you get in, you are bound to get off… No matter how many magnets try to keep you in… You cannot be there forever….

Our Journey

WP_20130425_032
We start our journey from the same place… But we end up being so much different… We don’t even notice how fast time goes by…. By the time we realize the temporariness of life, it’s too late to make a clear vision out of blurry memory…

You Know It

Warning... This post is a discrete post... This warning message was written before the post was written...

The quote that's spinning inside my head is, "Stay hungry... Stay foolish..".... Of course you all know who said that.. But do you really know what did he mean? Do I really know? But I know one thing... You know it when you feel it... But there is one problem.... Just a simple one... 'Life' of feeling is kind of transient... You cannot have the feeling once that is gone.... But 'knowing' is different than that.... Once you 'know' it... You just know it... It's more permanent (Yah, I know, nothing is permanent)... To summarize, you know it if you know it... you feel it if you are feeling it... And if I want to create a relation between 'know' and 'feel' like I did at the beginning of this post... Do you think it's going to stand? 'You know it when you feel it'... Do you think it's valid? What's the problem in this statement? LOL.... If you are already angry by now... See the below picture:


This is how you can write shit.... But there's always something inside shit.. Yes, more shit..... :P But, trust me, there's some good shit in this post... A few people would get it... They are the people who are now laughing... And others are pissed off ;)

Have a beautiful life people!

One of the Greatest and Most Influential Speeches in the History

Bangladesh got its independence in 1971. 26th March is the Independence day of Bangladesh. After 9 months of bloodshed Bangladesh got its victory on 16th December. History teaches us that behind every great victory, there is a leader. For the victory of Bangladesh, that leader was undoubtedly Sheikh Mujibur Rahman.

Before declaring the Independence on the late hours of 25th March, 1971, Sheikh Mujibur Rahman delivered a historical speech on 7th March of '71 at Ramna Race Course Maidan, Dhaka, which ignited the mass people of Bangladesh to get prepared for the Liberation war against Pakistan. The rest is history.

Listen to one of the most influential and powerful speeches to date (English Subtitle is included), see why Bangladeshi people call him the Father of the Nation, see how over two million people responded to him, see what it takes to be a great leader:



জয় বাংলা।

নতুন প্রজন্মের ভাষাসৈনিক!



১৯৫২ এর ২১ শে ফেব্রুয়ারী এই বাংলার সালাম, বরকতের মত অনেক যুবক প্রাণ দিয়েছিল মাতৃভাষার জন্য... নিজের মায়ের ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য... ভাষার জন্য এমন ত্যাগের নজির পৃথিবীর ইতিহাসে আর একটিও নেই... আর তাই আমাদের ভাষা আন্দোলনের এই দিনটি পেয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি...

প্রতিবছর আমরা এই ভাষা সৈনিকদের গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করি... শহীদ মিনারে ভোরের আগেই মানুষের ঢল নামে তাদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের জন্য... আজন্ম বাঙ্গালী তাদের সম্মান করবে এই বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে... আর সমগ্র বিশ্ব এই সম্মান প্রদর্শনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে যাবে...

ভাবছিলাম, সালাম বরকতরা তো অনেক দিয়েছে... আমরা কি করেছি? আমি হয়তো কিছুই করিনি... তবে এই প্রজন্মের কেও যে কিছু করেনি তা হয়তো ভুল... সালাম বরকতের রক্ত আমাদের দেহে এখনো প্রবাহমান... এখনো আমাদের মাঝে এমন কিছু মানুষ আছে যারা প্রতিনিয়ত লড়াই করে যাচ্ছে বাংলা ভাষার জন্য... এরাই বাংলাকে পৌঁছে দিচ্ছে সারা বিশ্বের কাছে... আমি তাদেরও সালাম জানাই... তারা হলেন আমাদের নতুন প্রজন্মের ভাষা সৈনিক...!

বাংলা ভাষায় যারা দিনরাত্রি ব্লগ লিখে যাচ্ছেন... আমি তাদের সালাম জানাই... ইন্টারনেটে বাংলা সর্বত্র... আর এটি সবার প্রথমে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিয়েছেন এই ব্লগাররাই...

উইকিপিডিয়াতে বাংলা এখন অনেক শক্ত... এর পিছনেও রয়েছে আমাদের এই নতুন প্রজন্মের ভাষাসৈনিকদের অবদান... আমার ফেইসবুক ফ্রেন্ডলিস্টেই এমন অনেকে আছেন যারা উইকি বাংলায় অবদান রেখেছেন... আমি তাদের সালাম জানাই...

বাংলা সংস্কৃতি, বাংলা গান, বাংলা নাটক, বাংলা সিনেমা, বাংলা গল্প, উপন্যাস, কবিতা, সর্বোপরি বাংলা ভাষাকে প্রতিনিয়ত উন্নত করে যাচ্ছেন আমাদের দেশের অনেক প্রতিভাবান শিল্পী এবং গুনীজনেরা... নিয়তটা ঠিক রেখে যে যার স্থান থেকে বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করে যাচ্ছেন এইসব মানুষজন... গানবোদ্ধা না হলেও অনেক গানই শুনি... এতটুকু বুঝি বাংলাদেশের তরুন প্রজন্ম বাংলা ব্যান্ড সংগীত কে এক অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে... প্রবাসে বড় হয়েও অনেক বাঙ্গালী কত সুন্দর বাংলা গান গায়! সিনেমার জগতেও আসছে পরিবর্তন... কিছু মানুষ নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন বাংলা সিনেমা কে নতুন করে সবার সামনে পরিচয় করিয়ে দিতে... এমন কিছু মানুষকে আমি খুব কাছ থেকে চিনি... বাংলা নাটকের কথা তো নতুন করে কিছুই বলার নেই... আগে যেখানে ফ্রেন্ডস, ডেক্সটার দেখে তরুণরা বিনোদন নিত, আর এখন সেইখানে জায়গা করে নিয়েছে 'হাউসফুল' এর মত জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক... এসবের পিছিনেও আছে আমাদের এ যুগের ভাষাসৈনিকরা... তারা হয়তো নিজেরাও জানেননা তারা বাংলা ভাষাকে কতটুকু দিচ্ছেন... আমি এদের সবাইকে শ্রদ্ধা জানাতে চাই... গত কয়েক বছরে আমরা এমনি কিছু গুণীজনকে হারিয়েছি... আমি জানি নাম না বললেও সবার চোখের সামনে তাদের ছবি ইতিমধ্যে চলে এসেছে... আমি তাদেরকেও গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করতে চাই...


একটা সময় ছিল যখন বাংলা সংবাদ শুনলে সবাই নাক শিটকাতো... আর এখন এই প্রবাসে বসে বসেও সারাদিন বাংলা সংবাদই শুনতে থাকি... এর পিছনে আছেন আমাদের তরুন প্রজন্মের নির্ভীক সাংবাদিকরা... যারা বাংলা সংবাদকে নিয়ে গেছেন আন্তর্জাতিক উৎকর্ষতায়... নিজেকে সৌভাগ্যমান মনে করি এমনি কিছু নির্ভীক ভাষা সৈনিকদের সাথে নিজের তারুন্যের অনেকটুকু সময় অতিক্রম করার জন্য... আমি তাদের শ্রদ্ধা জানাই... "তোদের নিয়ে আমি আসলেই অনেক ভাবে থাকি... এই দূর পরবাসের মাটিতে যখন টিভিতে তোদের দেখতে পাই, রেডিওতে তোদের কন্ঠ শুনতে পাই, আশেপাশের মোটামুটি সব মানুষই খুব অল্প সময়ের মধ্যে জেনে যায় এরা আমার বন্ধুবান্ধব!" :)

আমি হয়তো অনেক সেক্টরই বাদ দিয়ে যাচ্ছি... সব হয়ত মাথায় আসছেনা এখন...তবে আমি এটা খুব ভালভাবেই অনুভব করি যে আমাদের নতুন ভাষা সৈনিকরা বাংলার সর্বত্র ছড়িয়ে আছে... যারা প্রত্যক্ষ, পরোক্ষ ভাবে বাংলাকে নতুন ভাবে জাগ্রত করে যাচ্ছে... প্রতিদিন... প্রতিমুহূর্তে...

সুনির্দিষ্ট ভাবে কার নাম নেয়ার কথা ছিলনা আমার এই লেখায়... তবে একজনের নাম এখানে আমি না লিখে পারছিনা... এই যে আমি এখানে সাবলীল ভাবে বাংলা লিখে যাচ্ছি, ফেইসবুকে যে আজ সর্বত্র বাংলার ছড়াছড়ি, প্রতিদিন ব্লগে এতো এতো বাংলা পোস্ট... এসবের পিছনে যেই মানুষটির সবচেয়ে বেশি অবদান তার নাম হচ্ছে মেহদী হাসান খান... আমরা বাংলা লেখার জন্য এখন মোটামুটি সবাই যে সফটওয়্যারটা ব্যবহার করি তা হচ্ছে 'অভ্র'... এক সময় বাংলা টাইপিং আলাদা একটা দক্ষতা ছিল... আর অভ্রের কল্যাণে এখন যে কেউই খুব সহজে বাংলা টাইপ করতে পারে... এই মানুষটা সম্পর্কে খুব বেশি জানিনা... ওনাকে ফেইসবুকে ফলো করি... ফেইসবুকেই দেখেছি উনি মেডিক্যালে পড়েছেন... শুনেছি খুব প্রচার-বিমুখ আমাদের এই মেহদী ভাই... এই নতুন প্রজন্মের ভাষাসৈনিক, যিনি ইন্টারনেটে বাংলা ভাষার ব্যবহারকে সবার জন্য উপযোগী করেছেন তাকে শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানাই... সেই সাথে অভ্রের সাথে জড়িত সকল বাঙ্গালীকে জানাই সালাম... আপনারাই এই প্রজন্মের ভাষাসৈনিক... আপনাদের জন্যই একুশ বার বার ফিরে আসে... এবং বার বার ফিরে আসবে...

শেষ করার আগে অসাধারণ একটা টিউন আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই... হয়তো ফেইসবুকের কল্যাণে ইতিমধ্যেই সবাই এটি শুনে ফেলেছেন... তারপরও আমি আবার এখানে শেয়ার করলাম... 


বাংলাদেশ নিয়ে আমাদের সময়ের কিছু কালজয়ী গান

বাংলাদেশ নিয়ে এই গান গুলো আমি ঘুরে ফিরে প্রায়ই শুনি… তবে বিশেষ দিনগুলোতে বলতে গেলে প্রায় সারাদিন শুনি… এই ডিসেম্বারে বাংলাদেশ নিয়ে অনেক অনেক গান শোনা হয়েছে… বিশেষ করে আমাদের ১৯৭১’এর মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে… Youtube এ অনেক অনেক Playlist বানানো আছে যেখানে এই ধরণের গানগুলো একসাথে পাওয়া যায়… তবে এই পোস্টে যেসব গান শেয়ার করছি, এগুলো আমার All time favorite। এই গানগুলোর শিল্পীরা সব্ই আমাদের সময়ের… এই গানগুলোতে এমন কিছু লাইন আছে যেগুলো আসলেই হৃদয়ে ঝঙ্কার তুলে, গর্বে বুকটা ফুলিয়ে দেয়… ‘আমার বাংলাদেশ’! তোমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা… !

পপগুরু আজম খানের বাংলাদেশ

নগর বাউলের বাংলাদেশ

এল আর বি’র বাংলাদেশ

আর্ক-এর বাংলাদেশ

মাকসুদের বাংলাদেশ


শিরোনামহীনের বাংলাদেশ