Skip to main content

IUTian হওয়ার কষ্ট!


সবাই IUTian হওয়ার ভাল দিক নিয়ে লিখে... আজকে আমি IUTian হওয়ার খারাপ দিক নিয়ে কিছু লিখবো...

আমরা যখন IUT তে ছিলাম তখন পাশ করে যাওয়া senior ভাইরা প্রায় বলতো... "যা মজা করার করেনে... তোরা এই মুহূর্তে life এর best time টা কাটাচ্ছিস..." আমরা অবশ্য উনাদের কথাটা তখন মেনে নিতাম না... আমরা ভাবতাম... দুই দিন পরপর quiz... regular class এর ঝামেলা... এরপর পশ্চাৎদেশ লাল করে দেয়া Mid আর Final.... এসব life এ থাকলে ওই Life আবার best হয় ক্যামনে?? আরো ভাবতাম, কবে পাশ করে বের হব... চাকরিবাকরি করে independent হব... হাবিজাবি ইত্যাদি বেহুদা চিন্তাভাবনা...

IUT তে ৪টা বছর কোনদিক দিয়ে কেটে গেল বুঝতেই পারলাম না... পাশ করার সাথে সাথে convocation পেয়ে পা মাটি থেকে পুরা ১০ হাত উপরে উঠে গেল... মনে হল... এই তো আমি আজ স্বাধীন... আমি আজ কত বড় হয়ে গেছি... তখনও বুঝা বাকি একজন IUTian হওয়া মানে life টা পুরাই loss... পুরাই বরবাদ!

যাইহোক... পাশ করা সদ্য IUTian... ঘরে ফিরলাম... দেখলাম আমাকে ঘিরে অনেক আয়োজন... ছেলে Engineer!!! চাট্টিখানি কথা নয়... !! আয়োজনে আয়োজনে কেটে গেল আরও কিছুটা সময়... তখনও বুঝা বাকি কপালে কি দুঃখটা ছিল!

বেশ কিছুদিন rest নেয়ার পর চাকরির বাজারে নেমে দেখি আমি CV দিতে দিতে অর্ধেক পোলাপানের চাকরি হয়ে গেছে... ধৈর্য ধরে বেশ কিছু interview দেয়ার পর একটা চাকরি মিলে গেল কপালে... এই interview দিতে গিয়েও বুঝতে পারিনি IUTian হওয়া কতটা দুর্ভাগ্যজনক... কারণ, CV drop করা হতে শুরু করে appointment letter এ sign করা পর্যন্ত প্রতিটা ক্ষেত্রেই IUT'র senior ভাইয়াদের অমায়িক help... এমনো হইসে, অতি excited হয়ে অনেক আগে interview দিতে গিয়ে দেখি আমার serial অনেক পরে... তার মানে ঘন্টাখানেকের pain... কিন্তু ওই সুযোগটাও দিলনা বড় ভাইরা... Office এর কাজকর্ম ফেলে interview দিতে আসা একজন public রে ওই office এরই manager level এর কেও টং দোকানে এসে সঙ্গ দিবে এমন কল্পনা অনেকের কাছে হাস্যকর মনে হলেও এসব আমার জীবনে ঘটে যাওয়া বাস্তব ঘটনা... এরকম আরো অনেক কিছুই হয়ত বলা যাবে যা একজন IUTian হওয়া ছাড়া হয়ত কারো পক্ষে experience করা প্রায় অসম্ভব...... হুম... তখন পর্যন্ত বুঝিনাইরে ভাই, IUT তে পইরা কি ভুলটা করসি! 

চাকরি-বাকরি করা শুরু করলাম... দিন যেতে থাকল... আস্তে আস্তে সব কিছু কেমন জানি boring হওয়া শুরু করল... প্রায়ই অনুভব করতে লাগলাম... কি একটা জানি missing... সবই করছি... আড্ডাবাজি, এখানে-সেখানে ছোট-বড় tour, gaming, গান শোনা, movie, series দেখা... কোন কিছুই থেমে নেই... কিন্তু তারপরও কি একটা জানি missing...

আরো দিন যেতে থাকলো... কিছুটা responsibility বাড়লো... career নিয়ে আরও একটু চিন্তিত হলাম... সোজাকথা life টা আরেকটু complex হয়ে গেল... কোন কিছু করেই যেন আগের মত সেই মজাটা পাচ্ছিলামনা... বাসায় multi-player FIFA খেলা হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু IUT তে খেলে যে মজাটা পেতাম... তা আর পাচ্ছিলাম না... "খারাপ জায়গা"য় (south-hall এর একটি বিশেষ স্থানের নাম) অনেক আজইরা গান শুনেই মারাত্মক feel পেতাম, আর এখন অনেক ভালো-ভালো গানও যেন মনে হয় হৃদয় খানের গান... 406, 507 আর 504 এ অনেক কষ্টে জায়গা করে নিয়ে জটলা করে movie, series দেখে যতটা ভাল লাগত, এখন Cineplex এ গিয়ে movie দেখেও এতটা তৃপ্তি পাইনা... মধ্যরাতে ঢাকা কাবাবে গিয়ে মশার কামড় খেতে খেতে পরটা-ডিমভাজি যত মজা করে খেতাম, এখন বোধহয় KFC তে খেয়েও এতো শান্তি নেই... বুঝতে শুরু করলাম ভুলটা কোথায় করেছি... ভুলটা করেছি IUT তে পড়ে... IUT life এর ৪ টা বছর এতো জোস কেটেছে যে এখন যতই মজা করি, ফুর্তি করি তা আগের মত আর হয়না... মনটা বারবার ওই IUT তেই ফিরে যায়... IUT তে যখন ছিলাম তখন বুঝতাম না... ভাইয়ারা যা বলত IUT life সম্পর্কে, তাও ওভাবে তখন ভেবে দেখতাম না... এখন বুঝি উনারা কি বলতে চেয়েছিল... আমাদের হয়ত কিছু বছর আগেই তারা পাশ করে বের হয়ে গিয়েছে, হয়ত তারা আমাদের আগেই বুঝে গিয়েছে IUT-র life টা কি ছিল...কিন্তু সবাই গুনে গুনে ৪-৪ টা বছর IUT তে পার করে...... তাই সবাই বুঝে একসময়... এখন আমাদের বুঝার সময়... এসব লেখা পড়ে বড়ভাইরা হয়ত একটা দীর্ঘশ্বাস ফেলবেন, যারা এখনও IUT তে আছে (the luckiest ones on earth, no doubt) তারা হয়ত এসব পড়েই একটু পর ভুলে যাবে, কারণ IUT তে life টাই এরকম... বেশিক্ষন মন খারাপ করে থাকা যায়না... আর আমার batch-mate রা, 06 এর পোলাপানরা হয়ত এসব লেখা পড়ে আমারে মনে মনে গালি দিবে তাদের মন খারাপ করে দেয়ার জন্য...

জীবনে এখন অনেক মুহূর্ত আসে যখন মনে হয়, ইশশ... আবার যদি ফিরে যেতে পারতাম ওই Red Hell এ... চোখ বন্ধ করে মাঝে মাঝে ভাবি যে আমি এখনো ওখানেই আছি (হলফ করে বলতে পারি, এভাবে অনেকেই ভাবে... কিন্তু কেও মুখফুটে বলেনা...), ভাবি, CDS এ বসে চা-চু খাচ্ছি আর ঘন্টার পর ঘন্টা আজাইরা আড্ডা দিয়ে যাচ্ছি... এখনো মাঝে মাঝে 507 থেকে চিৎকার শুনি... "ওই!!! আমি create করসি, তুই join দে!!!"... মধ্যরাতে এখনও মনে হয় মাঝে মাঝে ছাদের পানির ট্যাঙ্ক-এর উপর সবাই এলোপাথারি বসে আছি... পাশে হয়ত গীটারে অনিক সুর তুলছে আর জিসান সঞ্জয়ের টান দেয়ার চেষ্টা করছে... এখনও মনে হয় বৃষ্টি নামলেই দৌড়ে সবাই নিচে নেমে গেছি আর বিরতিহীন বৃষ্টিতে ভিজে ভেজার কাপর পড়েই শাহী মামার দোকানে চা খেতে যাচ্ছি... চোখ বন্ধ করলে এখনও শুনি পরীক্ষার আগের রাতে 507 এর সব পাতলা jokes যেগুলো এখন শুনলে হয়ত মেজাজ খারাপ হবে, কিন্তু তখন হাসতে হাসতে গড়াগড়ি খেতাম... playing cards ছুঁয়ে দেখলে হঠাত করেই যেন flashback হয়... 507, 506 এর সেই বিরামহীন খেলা... serious খেকে funny, funny থেকে serious... মাঝে মাঝে সকালে ঘুম থেকে উঠে মনে হয় ফারদিন পাশের bed এ বসে বসে iPhone এ game খেলছে, আর পোংটা 'রাম' ঘুম দিচ্ছে... এখনো মাঝে মাঝে মনে হয় আমরা class এ বসে আছি... আর মনে মনে ফন্দি আঁটছি কিভাবে attendance দিয়ে class থেকে পালানো যায়...... এরকম......আরো অনেক কিছু...... অনেক ছোট-বড় স্মৃতি চোখ বন্ধ করলেই যেন মাঝে মাঝে জীবন্ত হয়ে উঠে...

আজরাতে আমার IUT যাওয়ার কথা ছিল... সবাই মিলে plan করেছিলাম... কিন্তু কিছু কারণে (ওইযে, বাস্তবতা...) আমি শেষ মুহূর্তে যেতে পারিনি... মনটা এতো খারাপ হয়ে গেলো... কাওকে বলতেও পারছিলাম না... আর আজ চাঁদটা এতো বিশাল ছিল যে আজ যেন IUT তে না গেলেই নয়... (এই IUT তে গিয়েই চাঁদের প্রেমে পড়েছিলাম... আমরা কয়েকজন ছিলাম... চাঁদটা একটু বড় হয়ে উঠলেই IUT-র ছাদে-মাঠে শুয়ে শুয়ে ভ্যা করে চাঁদের দিকে চেয়ে থাকতাম আর গান শুনতাম)... আজ যথারীতি office শেষ করে এলাকায় regular আড্ডা দিলাম... কিন্তু মনটা সারাক্ষণই ওই লাল দুনিয়াতেই পড়ে ছিল... বার বার মনে হচ্ছিল... ধুর! কোন ভাবে চলে গেলেই পারতাম! যখন Dinner করতে বসলাম তখন দেখি phone বাজে... খুব বিরক্ত লাগলো... আমি dining table থেকে উঠলাম না... এরপর দেখি phone বেজেই যাচ্ছে... মেজাজ-মুজাজ খারাপ করে ভাত রেখে phone ধরতে গেলাম... গিয়ে দেখি এক mobile এ লিমন ফোন করছে আর এক mobile এ Robi'র unknown number থেকে phone আসছে... বুঝলাম দুইটা call-ই IUT থেকে আসছে... লিমনের call receive করলাম... receive করার সাথে সাথে লিমনের সেইইই ঝারি! কয় "আগামি ৪ মিনিট কোন কথা বলবিনা... চুপচাপ শোন..." আমি থতমত খেলাম... এরপর শুনি ওখানে কেও গীটার বাজাচ্ছে... বুঝতে পারলাম আমার (actually আমাদের কয়েকজনের) খুব favorite একটা গান শুরু হচ্ছে... আধোয়া হাত নিয়েই দৌড়েই ছাদে উঠলাম... কারণ এই গানটা আমরা চাঁদ দেখতে দেখতেই বেশি শুনতাম... বাকি সব কিছু কে blurry করে দিয়ে চাঁদের দিকে চেয়ে থাকলাম... আমার মনে হচ্ছিল আমি ওখানেই আছি... south-hall এর সেই খারাপ জায়গাটাতে...চাঁদের আলোয় গান শুনছি সবাই একসাথে... আজরাতে IUT তে না গিয়েও কিভাবে যেন আমি ওখানে ছিলাম সবার সাথে... মনটা যদিও অনেক খারাপ হয়ে গেল তবে আমার IUT না যাওয়ার দুঃখটা যেন নিমেষেই চলে গেলো.... ঘন্টা খানেক পর আবার ওদের phone... এবার "ভাব জাগাইয়া দাও"... এর আগের বার চুপ করে গান শুনেছি, এবার আর পারলাম না... আমিও চোখ বন্ধ করে হেড়ে গলায় গাওয়া শুরু করে দিলাম... কিছু মুহূর্তের জন্য ফিরে গেলাম Red hell-এর সেই life-এ... এরপর থেকে আর স্থির থাকতে পারছিলাম না... মনের দুঃখ গুলো মনে আর রাখতে ইচ্ছা করছিলনা... চিৎকার করে সবাইকে বলতে ইচ্ছে হচ্ছিল... একজন IUTian -এর কষ্টের কথা... তাই আজ সবাইকে বলে দিলাম......

IUT'র এক ভাইয়া কথাটি যথার্থই বলেছেন... "IUT... Hell to live, heaven to leave..." এই কথার ভাবার্থ পুরাপুরি বুঝতে IUT থেকে পাশ করে বের হয়ে atleast ৬ মাস কাটানো লাগবে... এক লাইনে IUT কে এর চেয়ে সুন্দর করে ভাবে বোধহয় describe করা সম্ভব না... তাই এরপর আমি আর কিছু লিখলাম না.....

আমাদের IUT life এর কিছু মুহূর্ত share করলাম... আশা করি সব IUTian এর সাথেই এর কিছু না কিছু মিলে যাবে...



IUT-এর সেই endless corridor
জগৎবিখ্যাত সবুজ ভাই... উনি 1st IUTian যার সাথে আমার পরিচয় হয়...উনাকে অবশ্য এটা কখনো জানানো হয়নাই...

CDS-এ বসে ক্লাসের ফাকে (অথবা class-time-ই) উনত্রিশ খেলা

বইটা দেখে মনে পড়লো এরপর দিন টিটু Sir এর exam ছিল...

আমের season এ IUT-র অসংখ্য আমাগাছ থেকে চুরি করে অসংখ্য আম পেড়ে ভর্তা বানানোর প্রস্তুতি চলছে

একদম যে পড়ালেখা করিনাই তাও কিন্তু না... :P

একটা শীতের সকালে... এই দিন নিয়ে একটা মজার স্মৃতি আছে... আমি আর আমার roommate পোংটা এদিনের আগের রাতে সারারাত জেগে **** পটাচ্ছিলাম একটা পপুলার chatting client এ ;)। দুজনেই বেশ সফলতার সাথে রাতটা পার করি... ভোর হতেই আমাদের মনে হল আমাদের ৮টায় খুব important (!) একটা class আসে... miss করলে মোটামুটি পাঙ্গা! তাই ঠিক করলাম বাইরে গিয়ে চা খেয়ে একটু চাঙ্গা হয়ে আসব... কষ্ট করে শীতের সকালে ৬টায় বের হয়ে গেলাম চা খেতে... চা টা খেয়ে চাঙ্গা (!) হয়ে রুমে ফেরত এসে দেখলাম ৭টা বাজে... দুজনি ভাবলাম হাল্কা একটু rest তো নেয়াই যায়... ব্যস!!! চা-টা খেয়ে এসে দুজনেই টানা দুপুর পর্যন্ত চাঙ্গা একটা ঘুম দিলাম!

সেই CDS... যেখানে ঘন্টার পর ঘন্টা কোন কারণ ছাড়া বসে থাকতাম... কিন্তু বিরক্ত হতাম না...

IUTian দের আয়োজন করা ICT festএর Gaming Competition

Gaming Contest এ ছিলাম... এবং একটা চিন্তাই মাথায় ছিল, "অংশগ্রহণই বড় কথা..."। শেষপর্যন্ত ওই চিন্তাতেই থাকতে বাধ্য হয়েছিলাম

যাহা রটে তার কিছু তো ঘটে :P এটা আমাদের আড্ডা দেয়ার আরেক favorite place... তখনও CDS শাহীন অধিগ্রহন করে নাই বলে সময়মত ভিতরে চা পাওয়া যেত না...

Bodom... posing for children of bodom!

"The team-moonwalk"... ২০০৯ এর farewell program এর rehearsal এর সময় আমরা তিনজন আমাদের জন্মগত moonwalk প্রতিভা দেখিয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছিলাম... যদিও মূল program এ আমাদের perform করতে দেওয়া হয়নি

দুইবারই আমরা Warefaze এনেছিলাম... পুরা কুপাকুপি metal batch ছিলাম কিনা! :P

এ হল funky!!! বিশ্বাস করতে কষ্ট হয় সে এখন বিবাহিত!

ঘোড়াশাল Tour এ guest house এর ভিতর... এই guest house এর সাথে আমরা খুব অন্যায় করেছিলাম... যদিও তা এখানে বলা সম্ভব হচ্ছেনা ;) যে খাটে আমরা বসে আছি সেই খাটের মাঝখানের দিকটা ঢালু 'ছিল'... পোংটা ওখানেই বসে আছে

৫০৭ এ... আশফাক, লিমন, পোংটা... কিচ্ছু বলার নাই...

nonstop gaming session চলতো আশিকের PC তে

এটা আমার রুমের জানালা... এই জানালাটা special কিছু ছিলনা... but কেন জানি এখন আমার এইটার কথাও মনে পরে...

LOL... এটা CERS এ Industrial Training এর সময়... নাম বলবনা... কিন্তু ছবিতে এখানে একজনকে 'মামু' বানানো হচ্ছিল :P

ফাহিমের এই ছবিটা আমার অনেক ফেভারিট

৪০১ এ... যার desk এ এসব করা হইসে সে ওইদিন IUT তে ছিলনা :P

৫ তালার বিখ্যাত ব্লকের ব্লক মামারা :P

পানি মারামারির শিকার হয় নাই এরকম IUTian পাওয়া খুব দুষ্কর

মানে... পুরা... জলকেলি!

৫০৭ এর official তিন সদস্য... যদিও unofficial সদস্য সংখ্যা অনেক অনেক বেশি ছিল

মাঝে মাঝে IUT'র খাবার boycott করে আমরা নিজেরাই রান্নাবান্না করতাম!

যে গেঞ্জিটা সবার গায়ে দেখা যাচ্ছে ওইটা ৫ তালার ওই ব্লকের T-shirt। আর ব্লক party'র খাওয়া দাওয়াই চলছিল তখন

Industrial Tour এ গিয়ে শীতলক্ষ্যায় নৌভ্রমণ
Block থেকেও আলাদা farewell... তার জন্য আবার আলাদা কেক! :P
এখানে ৫ তালার আমাদের ব্লকের 06 এর সবার আজইরা কিছু কথা আছে...

Convocation এর অনেক ছবিই আছে... কিন্তু ওসব দিবনা... ওসব ছবি ঘাটতে গেলে এখন আবার মুড অফ হবে... তাই নিচের ছবিটাই দিয়েই বোধহয় শেষ করা উচিত..


Hail IUT... Hail IUTian brotherhood!

Comments

  1. বেশি ভালো লিখে ফেলেছিশ।

    ReplyDelete
  2. baba,....tumi mon ta kharap koraye dila.....

    ReplyDelete
  3. Very very well written my friend... beautiful

    ReplyDelete
  4. riyadh chara kaure-e ami jibone dekhi-o nai..but tarpor porte porte kmn jno lagtesilo.....amr versity life tar sathe mile jaccilo bole-e hoito.....

    ReplyDelete
  5. Ahsan Feroz [Sobuz]March 10, 2012 at 1:19 PM

    Ei tui ki kotha bolosh nai amare.....taratari bol....

    ReplyDelete
  6. haha.. bhai likheito disi... amar life e apniii prothom iutian.. :P .. iut te jawar age kivabe jeno apnar number paisilam.. phn disilam maybe kono ekta kichur junno... :)

    ReplyDelete
  7. jibon ta apu okahne theme geche....

    ReplyDelete
  8.  thanks dost... n missin u guys...!

    ReplyDelete
  9.  ধন্যবাদ দোস্ত!

    ReplyDelete
  10. ভাইয়া, আপনার এই লিখা সত্যি বলতে প্রত্যেকটা IUTian এর জীবনেরই একটা প্রতিচ্ছবি। খুব ভাল লাগলো।

    ReplyDelete
  11. ভাইয়া, আপনি এত সুন্দর করে কিভাবে আমাদের জীবনের সবচেয়ে আনন্দের সময়টাকে ভাষায় আনলেন । পুরোটা পড়ার পর চোখে পানি এসে গিয়েছিল ।

    ReplyDelete

Post a Comment

Popular posts from this blog

Heroin: The Deadly Addiction

“People believe that heroin is super, but you lose everything: job, parents, friends, confidence, your home. Lying and stealing become a habit. You no longer respect anyone or anything.”- Pete

"Heroin", one of the deadliest drugs of this world. According to BBC, there are 50 million regular users of heroin, cocaine and synthetic drugs worldwide. In most cases, these 50 million users didn't even realize when they became addicted. They started taking it as fun, as experiment, as accompanying someone who was already addicted.
Let's hear it from the voice of some people who eventually got addicted to heroin. For privacy issue, names or any kind of IDs of those people are not disclosed here.
Story 1:
"Was already mentally addicted to oxy, with the beginning point of some mild physical addiction symptoms. Oxy was expensive though, and my tolerance was going up. One day I was with my friend (who has become the biggest heroin user I know fwiw) and we were getting some …

টং দোকান (Tong Dokan)

Since I moved here in Canada, I have been missing so many things... My family, my friends, that easy life where my parents used to take care of everything, those endless hangouts and so many other things... I even miss those things which I used to hate back in my country... like load shedding, traffic jams and so on... But I am not gonna write about these things... Today I will babble a bit about 'Tong Dokan'. I know those who don't know Bengali, don't have any idea what I am talking about... But don't worry... I will write a whole post about it now.. I am gonna tell about how this is related to my life, how this is related to every person in Bangladesh..
--------

A busy highway. There is a lot of noise. Loud horns from different type of vehicles. Apart from cars and buses, a lot of Rickshaws are moving slowly in the road. Some passers-by are anxiously looking left and right to cross the road. There are some banks and departmental stores beside the highway. A lot of …

What Color Is My Parachute?

Inspired by the 'Self Inventory' chapter of 'What Color Is Your Parachute?' by Richard N. Bolles, last night I started drawing my thoughts on paper. I wanted to identify my real passion. It turned out to be something else though. Something more important. It gave me a picture of how my life has changed over the last two decades. 

I explored my memory - as far as I could. I tried to think what I used to do when I was in primary school (Grade 1 to 5). Then what happened in high school (Grade 6 to 10), how things changed in college (Grade 11-12), during my Bachelors and Masters, and what impact did 'moving to Canada' have on me. Then the obvious ones - how my life has changed with marriage and parenthood.


Though I was not surprised to look at the outcome, I must admit - I was not very conscious about all the changes that happened over time. Over the last 10 years or so, the changes have been dramatic. I have achieved some important characteristics, but probably a…